রোববার ২৩ জুন ২০২৪, আষাঢ় ৯ ১৪৩১

Aloava News24 | আলোআভা নিউজ ২৪

বাসের গরিব গরিব চেহারা দেখে লজ্জা লাগে:ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৪:৫৬, ১৯ মে ২০২৪

বাসের গরিব গরিব চেহারা দেখে লজ্জা লাগে:ওবায়দুল কাদের

সংগৃহীত

রাজধানীতে চলাচল করা বাসগুলোর গরীব চেহারা দেখে লজ্জা লাগে বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এত গরীব গরীব চেহারা আমাদের বাসের। আফ্রিকার ছোট ছোট শহরেও এর চেয়ে ভালো বাস চলে। আজ রবিবার (১৯ মে) রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত "ব্র্যান্ডিং সেমিনার অন ঢাকা মেট্রো রেল" অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এই ঢাকা শহর, যেই বাংলাদেশ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়ে বিস্ময় সেই দেশের রাজধানী পৃথিবীর অন্যতম খারাপ। বসবাসযোগ্য ১৪০টি দেশের মধ্যে ১৩০ এর পরে আমাদের অবস্থান। এটা দেশের উন্নয়নের সঙ্গে মিলে না। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী বলেন, এই শহরে এত দামী গাড়ি চলে কিন্তু বাসের অবস্থা এত খারাপ কেন! বারবার কথা বার্তা বলেও সমাধান করা যায়নি।

এই অবস্থা থেকে আমাদের মুক্তি পেতেই হবে। ঢাকায় যে বাসগুলো চলে ভীষণ খারাপ লাগে। এগুলো দেখলে কেমন লাগে। এটা আমার লজ্জা লাগে। আমাদের মালিক সাহেবরা কি বিদেশ যান না, দেখেন না!

তিনি বলেন, আজকে আমাদের বুড়িগঙ্গা শেষ, কর্ণফুলীও শেষ। এখন মুখে লেকচার দিয়ে লাভ নেই। এতবার অনুরোধ করেছি। কিন্তু কাজ হচ্ছে না।

মেট্রোরেলে ভ্যাট আরোপ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, মেট্রোরেল অনেক জনপ্রিয় গণপরিবহন।এটাকে আমরা আরো জনপ্রিয় করতে চাচ্ছি। এই অবস্থায় ১৫ শতাংশ ভ্যাট বসানোর বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পুনর্বিবেচনা করতে অনুরোধ জানিয়েছি।

পৃথিবীর কোন দেশে মেট্রো রেলে ১৫ শতাংশ ভ্যাট রয়েছে এমন প্রশ্ন তুলে মন্ত্রী বলেন, ভারতের মেট্রোরেলেও ভ্যাট নেই। তাহলে আমরা কেন ১৫ শতাংশ ভ্যাট বসাব। তিনি বলেন, মেট্রোরেল আমাদের সম্পদ। ২০৩০ সালে ৬টি এমআরটি লাইনের কাজ যখন শেষ হবে। এগুলোর মধ্যে দুটিই পাতাল রেল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে পরিকল্পনা, ঢাকা সেটারই অবিচ্ছেদ্য অংশ।

ব্র্যান্ডিং সেমিনারে অতিথিদের আমন্ত্রণ নিয়ে সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, সামনে যারা বসে আছেন তারা বেশিরভাগই আমাদের মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা। কিন্তু যাদের কাছে ব্র্যান্ডিংযের দরকার তারা নেই। তিন লক্ষ যাত্রী প্রতিদিন উত্তরা থেকে মতিঝিল আসছে। মতিঝিল থেকে উত্তরা যাচ্ছেন। এখানে তাদের কাউকে রাখা দরকার ছিল। মন্ত্রণালয়ের লোকদের কাছে ব্র্যান্ডিং করা দরকার আছে কিনা- এটা আমি আগেও বলেছি। আমরা কাদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখছি সেটা আমাদের মনে রাখতে হবে।

এনপি/আর

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়