রোববার ২৩ জুন ২০২৪, আষাঢ় ৯ ১৪৩১

Aloava News24 | আলোআভা নিউজ ২৪

স্বর্ণ চুরি: কাস্টমসের ৪ সিপাহী পুলিশ হেফাজতে

আলো আভা ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:৫১, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

স্বর্ণ চুরি:  কাস্টমসের ৪ সিপাহী পুলিশ হেফাজতে

ছবি সংগৃহীত

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কাস্টমস হাউসের নিজস্ব গুদাম থেকে স্বর্ণ চুরির ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন সিপাহীকে থানায় নিয়েছে বিমানবন্দর থানা পুলিশ। সোমবার ( সেপ্টম্বর) দুপুরে বিমানবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিজুল হক মিয়া তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, কাস্টমস হাউসের গুদামের নিরাপত্তায় শিফটিং ডিউটি করতেন এমন চারজন সিপাহীকে আমরা হেফাজতে নিয়েছি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

রোববার ( সেপ্টেম্বর) রাতে পৌনে ১১টায় কাস্টমসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন বাদী হয়ে বিমানবন্দর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বিমানবন্দর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. এনায়েত কবীর মামুন।

তিনি বলেন, মামলায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করা হয়েছে। এজাহারে বলা হয়েছে, কাস্টম হাউজের নিজস্ব গুদাম থেকে ৫৫ কেজি ৫১ গ্রাম স্বর্ণ চুরি হয়েছে। অজ্ঞাত আসামিদের নির্দিষ্ট সংখ্যা উল্লেখ করা নেই। আর এই মামলায় এখন পর্যন্ত কোনো গ্রেপ্তার নেই বলেও জানান তিনি।

এর আগে রোববার দুপুরের দিকে ভল্ট থেকে স্বর্ণ চুরির বিষয়টি জানাজানি হয়। ওই এলাকাটি সংরক্ষিত। পুরো এলাকা সিসি ক্যামেরার নজরদারিতে।

অবৈধ উপায়ে আনা যাত্রীদের কাছ থেকে জব্দ স্বর্ণের বার, অলংকারসহ গুরুত্বপূর্ণ জিনিসপত্র কাস্টম হাউসের গুদামে রাখা হয়। উধাও হওয়া স্বর্ণের মধ্যে অলংকার স্বর্ণের বার রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, কোনো চক্র সুকৌশলে কাস্টম হাউস থেকে জব্দ স্বর্ণ সরিয়ে ফেলেছে। দীর্ঘদিন ধরে অল্প অল্প করে সরানো হয়েছে, নাকি একবারেই গায়েব করাতা নিশ্চিত করার চেষ্টা চলছে। আশপাশের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বিশ্লেষণ করা হচ্ছে।

কাস্টম হাউসের একাধিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জব্দ মালপত্র গুদামে ঠিকঠাক রয়েছে কিনা, তা নিশ্চিত হতে কয়েক দিন ধরেই নিবিড়ভাবে কাজ করে যাচ্ছিল কাস্টম হাউস। আলাদা একাধিক দল গুদামের মালপত্রের তালিকা প্রস্তুত করছিল। সময় তারা দেখতে পায়, গুদামের একটি তালা বাইরে থেকে অক্ষত থাকলেও ভেতরের লকার ভাঙা। এর পরই স্বর্ণ চুরির বিষয়টি ধরা পড়ে।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়