মঙ্গলবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৯

Aloava News24 | আলোআভা নিউজ ২৪

অবরোধে অচল ইসলামাবাদ, স্কুল বন্ধ ঘোষণা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৮:৫৯, ৮ নভেম্বর ২০২২

অবরোধে অচল ইসলামাবাদ, স্কুল বন্ধ ঘোষণা

ছবি সংগৃহীত

পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতাকর্মীরা সরকারবিরোধী সমাবেশ করে পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে গুপ্তহত্যার চেষ্টার প্রতিবাদে নতুন করে বিক্ষোভ শুরু করেছেন। আজ মঙ্গলবার দেশটির রাজধানী ইসলামাবাদের আশপাশের বিভিন্ন সড়কে অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন তারা।

পিটিআইয়ের এই প্রতিবাদ সমাবেশের কারণে ইসলামাবাদে ব্যাপক যানজট তৈরি হয়েছে এবং সরকারি-বেসরকারি সব স্কুল বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছে কর্তৃপক্ষ।

চলতি বছরের এপ্রিলে পাকিস্তানের পার্লামেন্টে অনাস্থা ভোটে হেরে ক্ষমতা থেকে বিদায় নেন সাবেক ক্রিকেট তারকা থেকে প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসা ইমরান খান। ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর থেকে সাধারণ নির্বাচনের দাবিতে দেশজুড়ে রাজনৈতিক সভা-সমাবেশ করে আসছেন তিনি।

গত বৃহস্পতিবার পাঞ্জাব প্রদেশে পিটিআইয়ের লং মার্চে বক্তৃতা করার সময় গুলিবিদ্ধ হন তিনি। তার পায়ে অন্তত তিন থেকে চারটি গুলি লেগেছে। পায়ের ক্ষত থেকে সেরে উঠছেন তিনি।

 

ইসলামাবাদ পুলিশের কর্মকর্তা ইয়াওয়ার আলী বলেন, লোকজনের কাজে যেতে খুব কষ্ট হচ্ছে। পরিবারগুলো ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে যানজটে আটকে আছে। এমনকি বিক্ষোভকারীরা অ্যাম্বুলেন্সও যেতে দেয়া হয়নি।

খানের উত্তরসূরি প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফ নতুন নির্বাচনের দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন। বিরোধীদের আন্দোলনে ২২ কোটি মানুষের পারমাণবিক অস্ত্রধারী এই দেশটিতে ব্যাপক অস্থিতিশীলতা তৈরি হয়েছে।

ইমরান খানের সমর্থকরা সোমবার গভীর রাত থেকে ইসলামাবাদের প্রধান প্রধান সড়কে বিক্ষোভ-প্রতিবাদ শুরু করেছেন। তারা ইসলামাবাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরগামী মহাসড়ক এবং লাহোর, পেশোয়ার ও অন্যান্য শহরের সাথে সংযোগকারী সড়ক-মহাসড়কও অবরোধ করেছেন।

টেলিভিশনে প্রচারিত ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর সমর্থকরা সড়কজুড়ে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন।

রাজনৈতিক এই অচলাবস্থার কারণে দেশটির সরকার রাষ্ট্রীয় ও বেসরকারি সব স্কুল একদিনের জন্য বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে। স্কুল বন্ধের নির্দেশ সংক্রান্ত সরকারি একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে

উল্লেখ্য, ৭০ বছর বয়সী ইমরান খান গত ২৮ অক্টোবর লাহোর থেকে রাজধানী ইসলামাবাদ পর্যন্ত লংমার্চ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। এই লংমার্চের অংশ হিসেবে পাকিস্তানের বৃহত্তম প্রদেশ পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদে গত বৃহস্পতিবার হাজার হাজার নেতাকর্মীর সামনে বক্তৃতা করার সময় এক বন্দুকধারীর লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হন। সেই সময় কনটেইনারে থেকে উপস্থিত জনতার উদ্দেশে বক্তৃতার সময় ওই বন্দুকধারী তাকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলিবর্ষণ করেন।

লংমার্চে গুলির এই ঘটনায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। এছাড়া পিটিআইয়ের এক কর্মী মারা গেছেন। পুলিশ সন্দেহভাজন বন্দুকধারীকে গ্রেপ্তার করেছে।

পাঞ্জাবের যে স্থানে ইমরান খান আক্রান্ত হয়েছিলেন, বৃহস্পতিবার সেখান থেকে পুনরায় লংমার্চ শুরু হবে বলে সোমবার গভীর রাতে ঘোষণা দিয়েছে পিটিআই। আর ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এই লংমার্চের নেতৃত্ব দেবেন গুলিবিদ্ধ ইমরান খান। সূত্র : রয়টার্স

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়