মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪, ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

Aloava News24 | আলোআভা নিউজ ২৪

দ. আফ্রিকার মাটিতে বাংলাদেশের মেয়েদের প্রথম জয়

ক্রীড়া প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ১৩:১৬, ৪ ডিসেম্বর ২০২৩

দ. আফ্রিকার মাটিতে বাংলাদেশের মেয়েদের প্রথম জয়

ছবি: ইন্টারনেট

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১৩ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। প্রথমবারের মতো প্রোটিয়াদের মাটিতে তাদের হারালো বাঘিনীরা। এর আগে তাদের বিপক্ষে ১১ টি-টোয়েন্টি খেলেছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

২০১২ সালে প্রথম দেখায় মিরপুরে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়েছিল লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। এরপর দীর্ঘ ১১ বছর এবং ১০ ম্যাচ পর প্রোটিয়াদের হারালো তারা। অবিস্মরণীয় জয়ে ম্যাচ সিরিজে - ব্যবধানে এগিয়ে গেলো বাংলাদেশ।

রোববার ( ডিসেম্বর) বেনোনির উইলোমুর পার্কে টস জিতে আগে ব্যাট করে বাংলাদেশ। দলকে দারুণ সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার শামিমা সুলতানা মুর্শিদা খাতুন। উদ্বোধনী জুটি তারা তোলেন ৪৪ রান। ২৪ রানের ইনিংস খেলে আউট হন শামিমা।

পরে ওয়ানডাউনে নামা সোবহানা মোস্তারিকে নিয়ে এগিয়ে যান মুর্শিদা। ব্যাট হাতে দারুণ সাবলীল ছিলেন তিনি। ছোটাচ্ছিলেন স্ট্রোকের ফুলঝুরি। তাতে বড় সংগ্রহের স্বপ্ন দেখতে থাকে বাংলাদেশ। কিন্তু হঠাৎ খেই হারান সোবহানা। ১৬ করে ফেরেন তিনি। সেসময় দলীয় রান ছিল ৮৩।

এরপর অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি মুর্শিদার ব্যাটে চড়ে অগ্রসর হয় বাংলাদেশ। শেষদিকে নেমে ঝড় তোলেন জ্যোতি। তাতে তাল মেলান মুর্শিদা। দুজনের কার্যকরী ব্যাটিংয়ে মাত্র উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রানের চ্যালেঞ্জিং পুঁজি পায় বাংলাদেশ।

৫৯ বলে ৬২ রানের হার না মানা ঝলমলে ইনিংস খেলেন মুর্শিদা। আর ২১ বলে ৩৪ রানের ক্যামিও খেলে অপরাজিত ছিলেন জ্যোতি। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ১টি করে উইকেট নেন ননদুমোসি শাঙ্গাসি এলিয-মারি মার্ক্স।

জবাবে প্রোটিয়াদের উড়ন্ত সূচনা এনে দেন আন্নেকে বশক তাজমিন ব্রিটস। মারমুখি ব্যাটিংয়ে উদ্বোধনী জুটিতে তারা তোলেন ৬৯ রান। ৩০ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরের পথ ধরেন ব্রিটস। সঙ্গীকে হারালেও দমে যাননি বশক। এক প্রান্ত আগলে রেখে দলের রান বাড়িয়ে নিচ্ছিলেন তিনি। উইকেটের চারপাশে দৃষ্টিনন্দন সব শট খেলতে থাকেন প্রোটিয়া ব্যাটার।

পথিমধ্যে ফিফটিও তুলে নেন বশক। তবে অপর প্রান্তে তাকে কেউ সঙ্গ দিতে পারেননি। শেষমেষ অতিরিক্ত চাপ মাথায় নিয়ে ৪৯ বলে ৬৭ রানের ইনিংস খেলে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন তিনি। সেসময় স্বাগতিকদের স্কোর বোর্ডে রান ছিল ১২৩।

এরপরই পথচ্যুত হয় তারা। বল হাতে রুদ্রমূর্তি ধারণ করেন স্বর্ণা আক্তার। একে একে প্রতিপক্ষের উইকেট শিকার করেন তিনি। তার ছোবলে উইকেটে ১৩৬ রান তুলতে সক্ষম হয় দক্ষিণ আফ্রিকা। বাংলাদেশের হয়ে ১টি করে উইকেট নেন রাবেয়া খান, নাহিদা আক্তার ফাহিমা খাতুন।

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়