বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪, বৈশাখ ৫ ১৪৩১

Aloava News24 | আলোআভা নিউজ ২৪

হবিগঞ্জে বেড়েছে চুরি, অতিষ্ট ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা চেষ্টা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৬:১৮, ৩১ মার্চ ২০২৪

হবিগঞ্জে বেড়েছে চুরি, অতিষ্ট ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা চেষ্টা

রোববারের প্রতিবাদ সমাবেশের একাংশ

সিলেট বিভাগের হবিগঞ্জ জেলা শহরের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে একের পর এক চুরির প্রতিবাদে শহরের প্রধান সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে ব্যবসায়ীরা। প্রতিবাদ সভায় এক ব্যবসায়ী আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। সময় সড়কে প্রায় ঘন্টা যানচলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা জানান, ইদানিং শহরের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঘনঘন চুরি সংঘটিত হয়ে আসছে। বিষয়টি নিয়ে একাধিক মামলা দায়ের করা হলেও কোন কার্যকরি পদক্ষেপ নেয়নি পুলিশ প্রশাসন।

ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেন, পুলিশের যোগসাজশে এসব চুরি সংঘটিত হচ্ছে।

জানা গেছে, শুক্রবার দিবাগত রাতে শহরের টাউনহল এলাকার মোবাইল ফোনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগেজেট হবিগঞ্জেচুরি সংঘটিত হয়। চোরেরা নগদ টাকা, মোবাইলসহ প্রায় লক্ষাধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়।

এর প্রতিবাদে শনিবার বেলা ১১টা থেকে শহরের প্রধান সড়ক টাউন হল এলাকার রাস্তা অবরোধ করে রাখেন ব্যবসায়ীরা। অবরোধে প্রায় ঘন্টা যানচলাচল বন্ধ থাকে। ফলে শহরজুড়ে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়।

সময় ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরির সংঘটিত হলেও পুলিশ কোন ভূমিকা পালন করছে না। ফলে বাধ্য হয়েই ব্যবসায়ীরা রাস্তায় নেমেছে।

গেজেট হবিগঞ্জ প্রতিষ্ঠানের মালিক পাবেল খান চৌধুরী জানান, আমার দোকানে এখন পর্যন্ত বার চুরি হয়েছে। একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যদি বার চুরি হয়, তাহলে আর কিভাবে আমার ব্যবসা করব।

ব্যবসায়ী নেতাদের অভিযোগ, ছয় মাসে শহরে ৪০-৫০টি চুরির ঘটনা ঘটছে। একটির মালামালও উদ্ধার করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। চুরি বন্ধ না হওয়ায় ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির (ব্যকস) হবিগঞ্জের সাধারণ সম্পাদক মো. আলমীগর দেওয়ান বলেন, একের পর এক চুরির ঘটনায় আমরা আতঙ্কিত। প্রশাসন চুরি রোধে তেমন ভূমিকা রাখতে পারেনি। আমরা চাই চুরির মালামাল উদ্ধারসহ জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক।

হবিগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার খলিলুর রহমান বলেন, চোর ধরার চেষ্টা চলছে। রাতে শহরে পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে।

একই দাবিতে রোববার চুরি বন্ধে প্রতিবাদ সভা অবস্থান কর্মসূচি চলছে। সময় বক্তারা দ্রুত চুরি বন্ধে পুলিশ প্রশাসনকে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করার প্রতি জোর দেন।

এখন পর্যন্ত পাওয়া খবরে এর কোন সমাধান হয়নি।

 

আলোআভা/ নোমান

শেয়ার করুনঃ

সর্বশেষ

জনপ্রিয়